জঙ্গিবাদ ইস্যুতে বিশ্বকে কোণঠাঁসা রাখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ ইস্যুতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশকে কোণঠাঁসা করে রাখছে যুক্তরাষ্ট্র। অথচ নিজের দেশেই গত ৪৭৭ দিনে ৫২১টি গুলির ঘটনা ঘটেছে। তারপরও অস্ত্র নিয়ন্ত্রণে আইন করতে রাজি নয় ওয়াশিংটন।

চলতি বছরে প্রতি মাসেই বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। গত ৪৭৭ দিনে হামলা হয়েছে ৫২১ বার সবশেষ লাসভেগাসে কনসার্টে বন্দুকধারীর গুলিতে মারা যায় ৫৯ জন।

এরআগে ২০১৬ সালের ১২ জুন ফ্লোরিডার অরল্যান্ডো গে নাইটক্লাবে ৫০, ২০১৫ সালের ২ ডিসেম্বর ক্যালিফোর্নিয়ার সান বারনারডিনোতে ১৪, ২০১৫ সালের ১৮ জুন সাউথ ক্যারোলিনার চার্লসটোনে ৯, ২০১২ সালের ১৪ ডিসেম্বর কানেক্টিকাটের নিউটাউনে ২৬, ২০১২ সালের ২০ জুলাই কলোরাডোতে ১২, ২০০৭ সালের ১৬ এপ্রিল ভার্জিনিয়া খুন হয় ৩২ জন।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশটির শতকারা ৩০ জন যুবকের কাছেই বন্দুক রয়েছে। এছাড়া অস্ত্রধারীদের মধ্যে শতকরা ৬২জনের কাছে হ্যান্ডগান, ২২জনের কাছে রাইফেল ও ১৬ জনের কাছে রয়েছে শর্টগান।

সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা অস্ত্র নিয়ন্ত্রণে আইন করার চেষ্টা করলেও সফল হননি। লাস ভেগাসের ঘটনায় বিষয়টি আবার আলোচনায় আসলেও তা উড়িয়ে দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

দেশটিতে যেখানে নিজেদের নাগরিকদেরই নিরাপত্তার নিশ্চয়তা নেই, সেখানে অন্যদেশের নিরাপত্তা নিয়ে খবরদারি করা কতটা যৌক্তিক, সে প্রশ্ন থেকেই যায়।

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author

Leave a comment