আন্তর্জাতিক

হিজাব না পরায় অভিনেত্রীদের ওপর নিষেধাজ্ঞা

মোহনা অনলাইন

হিজাব না মেনে বাইরে বের হওয়ায় ইরানি ২০ জন অভিনেত্রীকে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দেশটির সংস্কৃতি ও ইসলামি নির্দেশনা মন্ত্রণালয়। নিষেধাজ্ঞাপ্রাপ্ত অভিনেত্রী আর বাইরে কাজ করতে পারবেন না বলে মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে। ১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামী বিপ্লব সংঘটিত হওয়ার পর থেকে সেখানে নারীদের চলাফেরা ও ইসলামী পোষাক পরা নিয়ে বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এ বিষয়ে দেশটিতে আইন রয়েছে এবং আইন ভঙ্গ করলে নারীদের কঠিন শাস্তির সম্মুখীন হতে হয়।

এই অভিনেত্রীদের মধ্যে আন্তর্জাতিকভাবে পরিচিত অভিনেত্রী তারানেহ আলিদুস্তি রয়েছেন। ২০১৬ সালে মুক্তি পাওয়া ‘দ্য সেলসম্যান’ সিনেমায় অভিনয় করে তিনি খ্যাতি পান। সিনেমাটির পরিচালক আসগার ফারহাদি সেরা বিদেশি ভাষার চলচ্চিত্র বিভাগে অস্কার পুরস্কার পেয়েছিলেন।

গুগল নিউজে ফলো করুন Mohona TV গুগল নিউজে ফলো করুন Mohona TV

উল্লেখ্য, কঠোর পোশাকবিধির আওতায় ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে মাহসা আমিনি নামের ২২ বছর তরুণীকে আটক করে ইরানে নৈতিক পুলিশ। একাধিক প্রত্যক্ষদর্শীর বয়ানে ও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে যে পুলিশি হেফাজতে পেটানো হয়েছিল তাকে। সেই মারধরে তার মৃত্যু হয়। এরপর ক্ষোভে ফুঁসে ওঠে ইরান। সমালোচনার ঝড় ওঠে বিশ্বজুড়ে।

সেই সময় বিক্ষোভের প্রতি সমর্থন জানাতে আলিদুস্তি ইনস্টাগ্রামে তার একটি ছবি প্রকাশ করেছিলেন, যেটিতে তার মাথায় হিজাব ছিল না৷ আর তার হাতে ধরা কাগজে লেখা ছিল ‘নারী, জীবন, স্বাধীনতা’৷ ছবিটি প্রকাশের পর আলিদুস্তিকে আটক করা হয়েছিল৷ দুই সপ্তাহ পর তিনি জামিনে ছাড়া পান৷ কাজের উপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার প্রতিক্রিয়ায় আলিদুস্তি সামাজিক মাধ্যমে লিখেছেন, আমি তোমাদের হেডস্কার্ফ পরার বাধ্যবাধকতা মানব না, যেটা থেকে এখনও আমার বোনদের রক্তে ঝরছে৷

author avatar
Editor Online
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button