এবার একযোগে আলোকিত হলো পুরো পদ্মা সেতু

মো: মনিরুজ্জামান মনির, শিবচর (মাদারীপুর)

নানা প্রতিকূলতা পেরিয়ে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সড়ক এখন উদ্ধোধনের অপেক্ষায়। ধাপে ধাপে শেষ হচ্ছে চুরান্ত পর্যায়ের ফিনিশিংয়ের কাজ। এর ধারাবাহিকায় পরিক্ষামূলক কার্যক্রম শেষের পর এবার বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে এযুগে পুরো সেতু সড়ক বাতি প্রজ্বলন করা হলো। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সেতুর মাওয়া থেকে জাজিরাপ্রান্ত পর্যন্ত সর্বমোট ৪১৫ বাতি প্রজ্বলন করা হয়। এতে একযোগে পুরো সেতু আলোকিত করা হয় প্রথমবারের মতো। আলো জ্বলমলে সেতুর অপরূপ দৃশ্য হয় প্রমত্তা পদ্মায়।

প্রকৌশলী সূত্রে জানা যায়, ১৭৫ ওয়াটের প্রতিটি এলইডি লাইটের একটি থেকে আরেকটির দূরত্ব সাড়ে ৩৭ মিটার। পদ্মা নদীতে তীব্র বাতাস উপেক্ষা করে টিকা থাকার উপযোগী করেস্থাপন করা হয়েছে সড়কবাকি গুলো। ঘণ্টায় ২শ কিলোমিটার বাতাসের গতি সহ্য করতে পারবে। মূল সেতুতে ৩২৮টি এবং দুই প্রান্তের সংযোগ সেতুতে ৮৭টি লাইট রয়েছে। এদিকে আলোকিত সেতু দেখে উচ্ছ¡সিত স্থানীয়রা।

প্রসঙ্গত, গেলো বছরের ২৫ নভেম্বর মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মাওয়া প্রান্তে প্রথম ল্যাম্প পোস্ট বসানোর কাজ শুরু হয়েছিলো। চলতি বছরের ১৮ এপ্রিল এসব ল্যাম্পপোস্ট বসানো ও এরমধ্যে বাতি লাগানোর কাজ শেষ হয়। গত ৪ জুন বিকেলে পরীক্ষামূলক ভাবে প্রথম বৈদ্যুতিক বাতি জ¦ালানো হয়। ওই দিন সেতুর ১৪ নম্বর থেকে ১৯ নম্বর পিলারের মাঝামাঝিতে ২৪ টি ল্যাম্প পোষ্টে বাতি জলানো হয়েছিলো। এরপর ১১ জুন পর্যন্ত পরীক্ষামূলক ভাবে সেতুর সবকটি বাতি জলানো হয়।

আগামী ২৫ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন করতে যাচ্ছেন। পরদিন সকাল ৬ টা থেকে যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে পদ্মা সেতু।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button