ছয় মাস পরই চলবে দেশের প্রথম মেট্রোরেল।

নাসির উদ্দিন

আর ছয় মাস পরই চলবে দেশের প্রথম মেট্রোরেল। উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশের কাজ প্রায় শেষ। রাজধানীতে এক সেমিনারে বাস্তবায়নকারী সংস্থা ডিএমটিসিএল বলছে, জিডিপিতে এক শতাংশ অবদান রাখার পাশাপাশি যোগাযোগে গতি আনবে মেট্রোরেল। যদিও যানজট নিরসনে মেট্রোর ভূমিকা নিয়ে সন্দিহান ঢাকা সিটির দুই মেয়র। তারা বলেন, স্টেশন কেন্দ্রিক উন্নয়ন পরিকল্পনা না থাকায় ভোগান্তি রয়েই যাবে।

এমআরটি লাইন-৬ দিয়ে প্রথম বিদ্যুৎচালিত রেলের যুগের প্রবেশ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। চলতি বছর ডিসেম্বরেই খুলবে উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশ। ২০২৩ সালের শেষ নাগাদ মেট্রোরেল যাবে মতিঝিল পর্যন্ত।

এছাড়া আরও পাঁচটি লাইন দিয়ে পুরো ঢাকাকে মেট্রো নেটওয়ার্কের আওতায় আনার পরিকল্পনা সরকারের। এমআরটি-১ এর কাজ শেষ হওয়ার কথা ২০২৬ সালে। পরের চার বছরের মধ্যে আসবে লাইন-৫ এর উত্তর-দক্ষিণ অংশ এবং মেট্রোরেল-৪। প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়ে সেমিনারে ডিএমটিসিএলের এমডি জানান, ৬টি লাইন দিয়ে পঞ্চাশ লাখের বেশি যাত্রী চলাচল করবে।

পরিকল্পনার ঘাটতির কারণে এতো এতো উন্নত অবকাঠামো দিয়েও যানজট নিরসন নিয়ে সন্দিহান নগর কর্তৃপক্ষ। ঢাকা উত্তরের মেয়র বলেন, স্টেশনমুখী সংযোগ সড়কের অভাবে কাঙ্ক্ষিত সেবা বঞ্চিত হবে জনগণ।

আর ডিএসসিসি মেয়র জানান, নানা প্রয়োজনে ঢাকায় গড়ে প্রতিদিন তিনহাজার মানুষ ঢুকছে। এ চাপ সামলাতে মেট্রোর সঙ্গে গণপরিবহনের সমন্বয় জরুরি।

এছাড়া চলতি বছর জলাবদ্ধতার ভোগান্তি অনেকটা কমবে, এমন আশা জানিয়ে দক্ষিণের মেয়র বলেন, কোথাও পানি জমলে, আধাঘন্টার মধ্যেই নেমে যাবে।

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button