স্মার্ট বাংলাদেশের সঙ্গে স্মার্ট পুলিশ বাহিনীও গড়ে তোলার প্রত্যয় প্রধানমন্ত্রীর

নাসির উদ্দিন

স্মার্ট বাংলাদেশের সঙ্গে স্মার্ট পুলিশ বাহিনীও গড়ে তোলার প্রত্যয় জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বলেন, পুলিশের প্রতি মানুষের আস্থা ফিরেছে। এই বিশ্বাস অক্ষুন্ন রাখতে বাহিনীর সদস্যদের নির্দেশনাও দেন তিনি।

আজ (০৩ জানুয়ারি) সকালে পুলিশ সপ্তাহ-২০২৩ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপি-জামায়াতের ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড রুখে দিয়ে জনমালের নিরাপত্তায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে পুলিশ। কোন প্রতিবন্ধকতা যেন দেশের অগ্রযাত্রা রুখতে না পারে, সেজন্য সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বানও জানান সরকার প্রধান।

বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে পুলিশ আছে জনতার পাশে, এ প্রতিপাদ্যে শুরু হলো পুলিশ সপ্তাহ ২০২৩। চলবে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত। রাজারবাগ পুলিশ লাইনস মাঠের উদ্বোধন আয়োজনে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। খোলা জিপে করে বার্ষিক পুলিশ প্যারেড পরিদর্শন করেন তিনি। এরপর বিভিন্ন কনটিনজেন্ট ও পতাকাবাহী দলের অভিবাদন গ্রহণ করেন।

২০২২ সালে, সাহসিকতা ও কৃতিত্বপূর্ণ কাজের জন্য বাংলাদেশ পুলিশ ও রাষ্ট্রপতি পদকে ভূষিত করা হয় ১১৭ জন সদস্যকে। সবাইকে সম্মাননা তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী।

বক্তব্যে, পুলিশ বাহিনীর আধুনিকায়নে সরকারের নেয়া পদক্ষেপ তুলে ধরেন তিনি। বলেন, নতুন প্রযুক্তি আর ইউনিট সংযুক্ত করে বাহিনীকে স্মার্ট হিসেবে গড়ে তোলা হবে। প্রাকৃতিকের পাশাপাশি মনুষ্যসৃষ্ট দুর্যোগ মোকাবিলায় পুলিশের ভূমিকার প্রশংসা করেন শেখ হাসিনা।

সরকার প্রধান আরো বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর জন্য জনগণের আস্থা অর্জন জরুরি। অতীতে সমস্যা থাকলেও এখন সে বিশ্বাস ফিরিয়েছে পুলিশ।দেশকে নিয়ে এখনও চক্রান্ত চলছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সম্ভাবনার পথে থাকলেই শুরু হয় অপতৎপরতা। অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানান তিনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button