ঝিমিয়ে পড়া কিডনির হাট নতুন দালালদের তৎপরতা , ৭ সদস্য গ্রেফতার

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

জয়পুরহাটের বিভিন্ন এলাকা থেকে কিডনী চক্রের ৭ সদস্যকে আটক করেছে জয়পুরহাট গোয়েন্দা পুলিশ। শনিবার বেলা ২টায় পুলিশ সুপার মাছুম আহম্মদ ভূঁঞা পুলিশ লাইন্স এর ড্রিল সেডে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, গত শুক্রবার রাতভর অভিযানে এসব কিডনী দালালদের আটক করা হয়েছে।

আটকৃতরা হলেন- জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার থল গ্রামের মৃত সিরাজের ছেলে সাহারুল ইসলাম (৩৮), উলিপুর গ্রামের ফরিদুল ইসলামের ছেলে ফরহাদ হোসেন চপল (৩১), জয়পুর বহুতি গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে মোশাররফ হোসেন (৫৪), মোবারক হোসেনের ছেলে মোকাররম হোসেন (৫৪), ভেরেন্ডি গ্রামের জাহান আলমের ছেলে শাহারুল ইসলাম (৩৫), দূর্গাপুর গ্রামের মৃত বছির উদ্দিন ফকিরের ছেলে সাইদুল ফকির (৪৫)। গোয়েন্দা পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের নিজ নিজ বাড়িতে আটক করেছে। এ ছাড়া একই অভিযানে পাঁচবিবি উপজেলার গোড়না গ্রাম থেকে জয়পুরহাট সদর উপজেলার হানাইল বম্বু গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে সাদ্দাম হোসেন (৪০) কেও আটক করা হয়েছে বলে জানান পুলিশ সুপার।

পুলিশ সুপার সংবাদ সম্মেলনে জানান, আটক কিডনী দালালরা দীর্ঘ দিন ধরে অভাবী মানুষদের অভাব-অনটনের সুযোগ নিয়ে তাদের চড়া সুদে ঋনের জালে ফাঁসিয়ে দেন। পরে দালালরা ঋন পরিশোধে ব্যর্থ নিরীহ ঋনী মানুষগুলোকে ফুসলিয়ে কিডনী বিক্রি করতে বাধ্য করেন।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে প্রমান সাপেক্ষে তাদের আটক করা হয় বলেও দাবী করেন পুলিশ সুপার। দালালরা কিডনি বেচাকেনার সাথে জড়িত রয়েছে বলে পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবদে স্বীকার করেন। কিডনি বেচা কেনা প্রতিরোধে দালাল চক্রের বিরুদ্ধে এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button