নড়াইলে মহানবীকে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি : কলেজছাত্র আকাশ সাহার ৩ দিনের রিমান্ড

নড়াইল প্রতিনিধি

নড়াইলে মহানবীকে (সাঃ) নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি : কলেজছাত্র আকাশ সাহার ৩ দিনের
রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

রোববার বিকালে লোহাগড়া আমলী আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজেস্ট্রেট মোঃ মোরশেদুুল আলমের আদালতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মাকফুর রহমান ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে বিচারক
শুনানী শেষে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার দিঘলিয়া এলাকায় মহানবী (সাঃ) নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তির অভিযোগে কলেজছাত্র আকাশ সাহাকে (২০) খুলনা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (১৬ জুলাই) রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে ঘটনার দিন ১৫ জুলাই রাতে দিঘলিয়া গ্রামের কচি সরদার বাদি হয়ে লোহাগড়া থানায় আকাশের নামে ‘ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার’ মামলা দায়ের করেন। তবে সাহাপাড়ার বাড়িঘরে ভাংচুর ও দু’টি মন্দিরে হামলার ঘটনায় রোববার দুপুর পর্যন্ত মামলা হয়নি বলে জানিয়েছেন লোহাগড়া থানার ওসি শেখ আবু হেনা মিলন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১৫ জুলাই লোহাগড়া উপজেলার দিঘলিয়াসাহাপাড়ার কলেজছাত্র আকাশ সাহার ফেসবুকে মহানবীকে (সাঃ) নিয়ে কটূক্তির ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। বিষয়টি ওইদিন জুম্মার নামাজের পর বিভিন্ন পেশার মানুষের নজরে আসে। এরপর বিক্ষুদ্ধ লোকজন আকাশ সাহার গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে তাদের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ করেন। ওইদিন বিকেল থেকে উত্তেজনা আরো বাড়তে থাকে।

বিক্ষুদ্ধ লোকজন একপর্যায়ে সাহাপাড়ার ৫-৬টি বাড়িঘর ভাংচুর করেন। এর মধ্যে একটি বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুনে দুই রুম বিশিষ্ট টিনের শেডের দেয়াল ঘরটি পুড়ে গেছে। এছাড়া সাহাপাড়ার মন্দিরের চেয়ার ও সাউন্ডবক্স এবং
আখড়াবাড়ি মন্দিরের টিনের চালা ভাংচুরসহ ইট ছুঁড়েছে বিক্ষুদ্ধরা।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়েন রয়েছে। এছাড়া পুলিশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি করেছে। ঘটনার পর আকাশের বাবাকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়।

পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। আপাতত পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button