পানির অভাবে পাট পচাঁতে পারছেনা কৃষকরা

মাহবুুবুর রহমান, শরীয়তপুর প্রতিনিধি

শরীয়তপুরে পাটের বাম্পার ফলন হলেও নদী-নালা,খাল বিলে পানির অভাবে পাট পঁচাতে পারছে না কৃষকরা।

শরীয়তপুর জেলায় এ মৌসুমে পাট চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে, সময় মতন বীজ রোপণ করতে পারায় লক্ষ্যমাত্রা অর্জন হওয়ায় বাম্পার ফলন হয়েছে । তবে নদী-নালা,খাল বিলে পানি না থাকায় পাট পঁচাতে পারছে না কৃষকরা। একই পানিতে বারবার পাট পঁচানোর ফলে পাটের আঁশ ভালো হচ্ছে না তবে পাটের দাম ভালো থাকায় হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে।

শরীয়তপুর জেলায় এ মৌসুমে পাট আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছিল ২৭ হাজার ৬শ ৬০ হেক্টর জমি। আবাদ হয়েছে ২৯হাজার ৬শ ৫৫ হেক্টর জমি। জুলাই মাসে বৃষ্টি কম হওয়ার কারণে উৎপাদন ঘাটতির আশংকা থাকলেও তা লক্ষ্যমাত্র ছাড়িয়েছে। আর উৎপাদনের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৬, লাখ ৮৬ হাজার ৩৩বেল, আর উৎপাদন হয়েছে ৭ লক্ষ ৩৬ হাজার ৪৩ বেল।

গোলাম রাসূল , জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার,কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, খামার বাড়ী, শরীয়তপুর জানান, এ বছর পাটের বাম্পার ফলন হয়েছে। লক্ষমাত্রা ছাড়িয়ে প্রায় ১৯২০ হেক্টর জমিতে বেশীপাট চাষ হয়েছে। কৃষকরা ন্যায্যমূল্য পাওয়ায় আগামীতে আরো পাট চাষ বেরে যাবে। তবে এ বছর পানির অভাবে পাট পঁচাতে পারছেনা। তাদের খরচও বেরে গেছে। সরকারের কাছে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের তালিকা করে দেয়া হবে।

শরীয়তপুরের তোষা,সেস্তা ও কেনাক দেশী পাটের চাহিদা দেশব্যাপী। এই সোনালী আঁশ শরীয়তপুরে কৃষকের মুখে হাসি ফুটালেও পানির অভাবে জাক দিতে পারছেনা।

 

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button