পুকুরে মরা মাছ ধরতে গিয়ে নারীর মৃত্যু!

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর(গাজীপুর)প্রতিনিধি

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের ভেরামতলি এলাকায় পুকুর থেকে মমতা খাতুন নামে এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

রোববার (১৯ জুন) দুপুরের দিকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছেন শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির।

নিহত মমতা খাতুন (৫৫) ভেরামতলি গ্রামের মোঃ আয়াত উল্লাহ-র স্ত্রী। নিহতের ভাই ফজর আলী জানান, দীর্ঘদিন ধরে মানসিক অসুস্থতায় ছিলেন মমতা খাতুন। কয়েকটি হাসপাতালে চিকিৎসা চলছিল তার। গতকাল থেকে নিখোঁজ ছিলেন তিনি। স্বজনদের বাড়িতে খোঁজ খবর নিয়েও কোথাও পাওয়া যাচ্ছিলনা।

রোববার সকালের দিকে ভেরমাতলি গ্রামের কাশিমপুর যৌথ মৎস্য খামারের একটি পুকুরে তাঁর লাশ ভেসে ওঠে। পরে স্বজনরা পুলিশে খবর দিলে পুকুর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহতের স্বামী আয়াত উল্লাহ জানান, তার স্ত্রী মমতা বেগমের মৃগী রোগ ছিল। এ ছাড়া তিনি ছিলেন কিছুটা মানসিক বিকারগ্রস্ত। প্রায়ই তিনি নিখোঁজ হয়ে যেতেন। এ ধরনের ঘটনায় গত ২০২০ সালে শ্রীপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করা হয়েছিল।

মাওনা ইউপি সদস্য আনিসুর রহমান দুলাল বলেন, মাঝেমধ্যেই ওই খামারের পুকুরে মরা মাছ ভেসে ওঠে। স্থানীয়দের মতো মমতাও ওইসব মাছ ধরতে যেতো। শনিবার বিকেলের দিকে মমতা সেসব মাছ ধরতে গিয়ে পুকুরে ডুবে যায়। মমতা মৃগী রোগে আক্রান্ত ছিলেন বলে হয়তো পাড়ে উঠতে পারেননি ।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মনিরুজ্জামান মনির মোহনা টেলিভিশন অনলাইনকে বলেন, খবর পেয়ে পুকুর থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে পরবর্তী আইনগত পদক্ষেপ চলমান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button