বন্যার পানি নেমে যাওয়ায় ভাঙনের আশংকায় লালমনিরহাটের তিস্তাপাড়ের মানুষ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি সুমন খান

লালমনিরহাটে বন্যার পানি নেমে যাওয়ায়, বসতবাড়ী, ফসলি জমি ভাঙনের আশংকায় তিস্তাপাড়ের মানুষেরা। জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার ডাউয়াবাড়ি ইউনিয়নের আলহাজ আছের মামুদ সরকার নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয় ও উত্তর ডাউয়াবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি তিস্তার ভাঙনের কবলে পড়েছে। এখনই ব্যবস্থা না নিলে বিদ্যালয় দুটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

লালমনিরহাটে পানি কমতে শুরু করায় ভাঙনের শংকায় তিস্তার তীরবর্তী জনপদের লোকজন। ইতোমধ্যে জেলার পাঁচ উপজেলায় ভাঙন শুরু হয়েছে। ভাঙনের মুখে রয়েছে দুটি বিদ্যালয়। জরুরী ব্যবস্থা না নিলে যেকোন মুহূর্তে এগুলো নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশংকা করছেন স্থানীয়রা।

গেল কয়েক বছরের বন্যায় এলাকার মসজিদ, বিদ্যালয়সহ কয়েক হাজার একর আবাদী জমিও গিলেছে সর্বগ্রাসী তিস্তা। এবার বিদ্যালয় দুটিও বিলীনের অপেক্ষায় বলে শঙ্কিত শিক্ষক-শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা

এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলেন স্থানীয় প্রশাসনের এই শীর্ষ কর্তা নাজির হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, হাতীবান্ধা , লালমনিরহাট

ভাঙ্গন রোধে তিস্তার বামতীরে বাঁধ নির্মাণ জরুরী  বলে মনে করেন তিস্তাপাড়ের মানুষেরা।

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button