লক্ষ্মীপুরের শীর্ষ ৩ জামায়াত নেতা কারাগারে 

মামুনুর রশিদ, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুরে সন্ত্রাস দমন আইনের মামলায় জামায়তের তিন শীর্ষ নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। তারা হলেন   জেলা জায়ামাতের আমির রুহুল আমিন, সেক্রেটারী হাফিজ উল্যা ও জেলা কমিটির সিনিয়র নেতা নুরুল হুদা।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ রহিবুল ইসলাম তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ সেপ্টেম্বর শহরের দক্ষিণ তেমুহনী এলাকার সেমিপাকা একটি ভাড়া বাসায় জামায়াতের ৪০-৫০ জন লোক সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটানোর পাঁয়তারায় বৈঠক করছিলেন। এসময় ৫২০ টি জেহাদি বইসহ দুইজনকে আটক করে পুলিশ। বাকিরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

পরদিন সদর মডেল থানার এসআই হাবিবুর রহমান বাদী হয়ে সন্ত্রাস দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করে। আটকদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়। ১০ অক্টোবর রাতে আরও তিন জামায়াত নেতাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এতে এ মামলায় আবদুর রহমান, নুর আলম লিটন, আবদুর রশিদ ও সক্রিয় শিবির সদস্য সুমন ও বেলাল হোসেন কারাগারে রয়েছেন।

এদিকে মামলার অন্যতম আসামি রুহুল আমিন, হাফিজ উল্যা ও নুরুল হুদা তখন উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়েছিলেন। জামিনের সময় শেষ হওয়ায় তারা লক্ষ্মীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিন আবেদন করেন। আদালত তা নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

লক্ষ্মীপুর জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলী (পিপি) জসিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে বিবাদীদের আইনজীবি অ্যাডভোকেট মহসিন কবীর জানান, কিছু কোরান-হাদীসের বই উদ্ধার করে ভূয়া একটি মামলা দেয়া হয়েছে। উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে আজ নিম্ম আদালতে আত্মসমর্পন করলে জামিন না মঞ্জুর হয়।

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button