শাশুড়ীর সাথে অভিমানে গৃহবধূর আত্মহত্যা!

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনিধি

গাজীপুরের শ্রীপুরে নিজ সন্তানকে শাসন করার সময় শাশুড়ী- ননদ বাঁধা দেওয়ার পর তাঁদের সাথে অভিমান করে মোছাঃ নূরুন্নাহার (৩০) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন ।

পরিবারের লোকজন এমন দাবি করছেন বলে মোহনা টেলিভিশন অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন মাওনা চকপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) আবু জাফর মোল্লা।

বুধবার (১১ মে) রাত সোয়া সাতটার দিকে উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের সিংগারদিঘী গ্রামের হানু মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে রাত সাড়ে দশটার দিকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহত মোছাঃ নূরুন্নাহার ওই গ্রামের মোঃ লিটন মিয়ার স্ত্রী। তিনি ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশাল থানার ধলা গ্রামের মোঃ মুছা মিয়ার মেয়ে। স্থানীয় ইউপি সদস্য ও এলাকাবাসী বরাত দিয়ে পুলিশ জানান, পারিবারিক সম্মতিতে ১২ বছর আগে লিটন মিয়ার সাথে নুরুন্নাহারের বিয়ে হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে দেড় বছরের শিশুসহ তিনটি সন্তান রয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যার দিকে নুরুন্নাহার তার মেয়ে প্রিয়াকে কোনো একটি বিষয়ে শাসন করছিল। কথা না শোনায় তাকে মারধর করতে গেলে শাশুড়ী ও ননদ প্রতিবাদ করে। তারা টানাটানি করে ওই শিশুকে অন্য ঘরে নিয়ে যায়। এরপর ওই নারী অভিমান ও রাগান্বিত হয়ে দৌড়ে নিজ ঘরের দরজা বন্ধ করে রাখেন। একপর্যায়ে ঘড়ের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেচানো ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে জানানো হয়।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির মোহনা টেলিভিশন অনলাইনকে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে পরবর্তী আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button