শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে এক যুবকের দায়ের কোপে নববধূ নিহত

শেরপুর প্রতিনিধি - রেজাউল করিম বকুল 

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে প্রতিবেশি এক যুবকের দায়ের কোপে দিতি (১৮) নামে সদ্য বিবাহিতা এক নববধূ নিহত হয়েছে।  বুধবার (২৯জুন) দিবাগত রাতে  পৌর শহরের কালিনগর মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও স্বজনেরা জানায়, কালিনগর মহল্লার মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে রহুল আমিন (২৫) মাদকাসক্ত। তারই প্রতিবেশি মুছা মিয়ার মেয়ে দিতির গত বৃহস্পতিবার উপজেলার চেল্লাখালী সন্যাসীভিটা এলাকায় খাইরুল নামে এক যুবকের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ে পর দিতিকে পিতার বাড়ি কালিনগর রেখে স্বামী খাইরুল পেশাগত কাজে কর্মস্থল ঢাকায় চলে যায়।
বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে নয়টার দিকে ঘাতক রহুল আমিন তার ভাবি রাহেলাকে নিয়ে দিতিদের বাড়িতে যায়। এসময় রাহেলা দিতিকে দরজা খোলতে বললে দিতি দরজা খোলে দেয়। এ সময় মাদকাসক্ত রহুল আমিন দা নিয়ে দিতির মাথায় কোপ দিলে সে  মেঝেতে পড়ে যায়।
পরে স্বজনেরা উদ্ধার করে দিতিকে নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ময়মনসিংহ নেওয়ার পথে রাত সাড়ে দশটার দিকে দিতির মৃত্যু হয়।
এদিকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ঘাতক রহুল আমিনের ভাবি রাহেলাকে আটক করে। পরে রাত সাড়ে এগারোটার দিকে রহুল আমিন নিজেই পুলিশের কাছে এসে হত্যার কথা স্বীকার করে ধরা দেয়।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনার তদন্ত চলছিল। মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সহকারী পুলিশ সুপার নালিতাবাড়ী সার্কেল আফরোজা নাজনীন ও ওসি বছির আহমেদ বাদল। তবে এখনও পর্যন্ত হত্যাকাণ্ডের কারণ জানা যায়নি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button