শেয়ালের কামড়ে ১৮ জন কৃষক আহত

মেহেদী হাসান শ্যামল-রাজশাহী ব্যুরো।

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামে কয়েকটি  শেয়ালের কামড়ে ১৮ জন কৃষক আহত হয়েছেন।

এর মধ্যে চারজনকে বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) জুন ভোর সাড়ে ৬টার দিকে বাগমারা উপজেলার শ্ওরীপুর গ্রামে  পান বরজে পান ভাঙতে গেলে এই ঘটনা ঘটে। শেয়াল গুলো আগে থেকেই ওই পান বরজে লুকিয়ে ছিল। প্রথমে একজনকে কামড়ালে অন্যরা তাকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে পরপর ১৮ জন শেয়ালের কামড় ও আঁচড়ে আহত হন। পরে একটি শেয়ালকে  ধরে পিটিয়ে মেরে ফেলেন বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী। বাকি শেয়াল গুলো মারার জন্য খুঁজছে এলাকাবাসী।

মিয়ালের কামড়ে আহতরা হলেন হলেন- লোকমান আলী ও আফসার মৌলভি। অন্যদের মধ্যে হাবিবুর রহমান, আব্দুল মান্নান, নাঈম হোসেন, মকবুল হোসেন, আইনাল হক, আব্দুস সালাম, কাশেম আলী, রফিকুল ইসলাম, আব্দুল গফুর ও আজিজুল ইসলাম আহত হয়েছেন। এছাড়া আজিজুলের কন্যাশিশুও আহত হয়েছে। তাদেরকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্র প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাজশাহী সিভিল সার্জন।

রাজশাহীর সিভিল সার্জন আবু সাঈদ মোহাম্মদ ফারুক জানান, মঙ্গলবার ভোরে পান বরজে গিয়েছিলেন কৃষকরা। তারা পান ভাঙতে গেলে লুকিয়ে থাকা শেয়াল আতর্কিতভাবে তাদের ওপর হামলে পড়ে। এতে এক এক করে ১৮ জন আহত হন।
উপজেলা পর্যায়ে ভ্যকসিন না থাকায় আহতদের মধ্যে চারজনকে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান- রাজশাহী সিভিল সার্জন।

 

 

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button