শ্রীপুরে কৃষকের ৫ গরু চুরির ঘটনায় দু’জন কারাগারে!

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর(গাজীপুর)প্রতিনিধি

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার সাতখামাইর ইউনিয়নের ডালেশহর গ্রামে কৃষকের ৫ গরু চুরির অভিযোগে জনতার হাতে আটক দুই ব্যক্তিকে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

 

সোমবার বিকেলের দিকে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে মোহনা টেলিভিশন অনলাইনকে জানিয়েছেন শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মনিরুজ্জামান মনির। এরআগে, রোববার ভোর রাতের দিকে চুরির ঘটনা ঘটে।

 

আটককৃতরা হলেন, সাতখামাইর গ্ৰামের মালেক পাঠানের ছেলে লোকমান পাঠান (৩০) ও একই গ্রামের বাসিন্দা মোঃ সাগর (৩২)। ডালেশহর গ্রামের মোঃ সিরাজুল ইসলামের বাড়িতে ৫টি গরু চুরির ঘটনা ঘটে। এই চুরির ঘটনার প্রেক্ষিতেই দুই ব্যক্তিকে সন্দেহজনক হিসেবে আটক করে স্থানীয়রা।

 

আটক দুজনের একজন লোকমান পাঠান বরমী ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বলে জানা গেছে। অপরদিকে চুরি যাওয়া গরুর মালিক মোঃ সিরাজুল ইসলাম তাঁতী লীগের কর্মী।

 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, শনিবার দিবাগত রাত থেকে রোববার ভোর রাতের কোনো এক সময় সিরাজুল ইসলামের বাড়ি থেকে পাঁচটি গরু চুরি হয়। ভোরের দিকে বিষয়টি জানাজানি হলে গরুর মালিক ও স্থানীয় লোকজন এ ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত সন্দেহে মোঃ সাগর ও লোকমান পাঠানকে আটক করেন। পরে সকালের দিকে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ গিয়ে স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে ওই দুজনকে নিজেদের জিম্মায় নিয়ে আসেন।

 

তারা আরও বলেন, লোকমান মানবাধিকার কর্মী পরিচয় দিয়ে এলাকায় নানা অপরাধ করে বেড়ায়। তাদের গ্রুপের ভয়ে জিম্মি রয়েছে খাস পাড়ার নিরীহ মানুষ।

 

বরমী ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল লতিফ জানান, লোকমান আগের কমিটির সাধারণ সম্পাদক ছিল। তাঁর কর্মকান্ড বিশ্লেষণ করে আমাদের বর্তমানে কমিটিতে তাকে রাখা হয়নি। গতকালের ঘটনার বিষয়ে আমার জানা নেই।

 

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আমজাদ শেখ বলেন, গরু চুরির অভিযোগে দুজনকে আটক করে সোমবার কোর্টে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন। তিনি আরও বলেন, আটক লোকমানের নামে আগেও ইয়াবার মামলা রয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button