শ্রীপুরে ট্রেন-বাস সংঘর্ষঃ আহত আরো একজনের মৃত্যু

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনিধি

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বরমী ইউনিয়নের মাইজপাড়া গ্রামে শ্রমিকবাহী বাসকে ট্রেনের ধাক্কায় আহত আরো এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ৬ জনে।

রোববার (১৪ আগষ্ট) বিকেলের দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত মোঃ আরমান (১৯) গাজীপুরের শ্রীপুরের বরমী ইউনিয়নের বরনল গ্ৰামের সবুজ মিয়ার ছেলে। তিনি শ্রীপুরের টেপিরবাড়ি গ্রামের জামান ফ্যাশন কারখানায় প্রায় ২ মাস ধরে চাকরি করছিলেন। নিহত মোঃ আরমানের বড় ভাই মোঃ মাসুদ মিয়া বলেন, দুর্ঘটনার পর থেকেই তাঁর ভাইকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। টানা ২০ দিন‌ ধরে তার চিকিৎসা চলে। অবশেষে রোববার বিকেলে তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনায় আরমানের মাথায় আঘাত লেগেছিল। মাথায় বড় ধরনের অস্ত্রপাচার হয়েছে । প্রচুর অর্থ খরচ করতে হয়েছে চিকিৎসা করতে গিয়ে। তিনি আরো বলেন, আত্মীয়স্বজনের কাছ থেকে টাকা ধার নিয়ে চিকিৎসা করাতে হয়েছে তাদের। তাৎক্ষণিক বরাদ্দের ১০ হাজার টাকাও তারা পাননি। তবে এ বিষয়ে তাঁদের কোনো অভিযোগ নেই।

শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ তরিকুল ইসলাম মোহনা টেলিভিশন অনলাইনকে বলেন, আরমান নামের এক শ্রমিকের মৃত্যুর খবর শুনেছি। আমরা তার পরিবারের কাছে দাফনকাফনের জন্য বরাদ্দ ২০ হাজার টাকা হস্তান্তর করবো।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ জুলাই রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাইজপাড়া কমলাদিঘী এলাকায় চলন্ত ট্রেন শ্রমিকবহনকারী বাসটিকে ধাক্কা দিলে পাঁচ জন নিহত ও কমপক্ষে ২০ জন আহত হন। নিহত তিন জন ট্রেনের ইঞ্জিনের সম্মুখভাগে বসা ছিলেন। বাকিরা বাসের যাত্রী।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button