জ্বলন্ত সিগারেট মুখে ঢুকিয়ে ছাত্রী ধর্ষণ চেষ্টা ,কথিত সাংবাদিক কারাগারে

মোঃ রাশেদুল ইসলাম, নাটোর প্রতিনিধি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কন্ঠস্বর। নারী ও শিশু নির্যাতনের বিরুদ্ধে সদা সোচ্চার। সুন্দর বাচনভঙ্গি ও কথার যাদুতে মোহিত করে রাখেন ফলোয়ারদের। নিয়েছেন এক অখ্যাত জাতীয় পত্রিকার জেলা প্রতিনিধির কার্ডও। স্থানীয় একটি সাপ্তাহিক সংবাদপত্রের ফেসবুক পেইজের লাইভেও তিনি জনপ্রিয় মুখ। খুলে বসেছেন একটি আইটি প্রশিক্ষণ সেন্টার।

নাটোরে সাজ্জাদুর রহমান সাকিব(২৬) নামের প্রতিবাদের ধ্বজ্বাধারী এই যুবককে তথ্য-প্রযুক্তির প্রশিক্ষণ নিতে আসা এক স্কুল ছাত্রীর মুখে জ্বলন্ত সিগারেট ঢুকিয়ে যৌন হয়রানিসহ ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার সাজ্জাদুর রহমান সাকিব দিঘাপতিয়া এমকে কলেজের উপাধ্যক্ষ আমজাদ হোসেনের ছেলে ও শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকিউবিশন সেন্টারের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত অর্কিড আইসিটি ওয়ার্ল্ডের পরিচালক। সাকিব নিজেকে নাটোরের স্থানীয় সাপ্তাহিক পত্রিকা সংবাদ শৈলীর স্টাফ রিপোর্টার ও দৈনিক আমার সুন্দর দেশ নামের এক দৈনিক পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি হিসেবে পরিচয় দেন।

গতকাল সোমবার(২রা জানুয়ারী) রাত ১০টায় শহরের পুরাতন জেলখানার শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শহরের একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ওই ছাত্রী গত দশ দিন আগে নাটোরের শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত অর্কিড আইসিটি ওয়ার্ল্ডে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের জন্য ভর্তি হন। ভর্তির পর থেকে তিনি সেখানে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছিলেন। গত বৃহস্পতিবার অর্কিড আইসিটি ওয়ার্ল্ডের পরিচালক সাকিব ওই শিক্ষার্থীকে ফোন করে শনিবার সকাল ৮টা থেকে প্রশিক্ষণ শুরু হবে বলে জানালে ওই শিক্ষার্থী শনিবার সকাল আটটার মধ্যে প্রশিক্ষণের জন্য সেন্টারে আসেন। এ সময় অন্য কোনো শিক্ষার্থী না থাকার সুযোগে ভূক্তভোগীকে কক্ষের মধ্যে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা শুরু করেন অভিযুক্ত সাজ্জাদুর রহমান সাকিব। বাধা দেয়ায় ভুক্তভোগীর মুখে জ্বলন্ত সিগারেট ঢুকিয়ে নির্যাতন করে দফায় দফায় ধর্ষণের চেষ্টা করে সাকিব। দীর্ঘসময় ধর্ষণের চেষ্টা করা হয় তাকে। মেয়েটির সাথে ধস্তাধস্তির ঘটনার এক পর্যায়ে প্রশিক্ষণের অন্য শিক্ষার্থীরা প্রশিক্ষণের জন্য ওই প্রতিষ্ঠানে আসতে শুরু করলে সাকিব ওই ছাত্রীটিকে ছেড়ে দেয়। ছাত্রীটি ভয়ে তাৎক্ষণিকভাবে  তার পরিবারকে কিছু জানায়নি। তবে সোমবার তিনি তার পরিবারকে বিষয়টি জানান। পরে তার পরিবারের সদস্যরা অর্কিড আইসিটি ওয়ার্ল্ডে এসে পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান সাকিবকে মারপিট করতে উদ্যত হন।

শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের সহকারী প্রোগ্রামার শরিফুল ইসলাম বিষয়টি নাটোর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাছিম আহমেদকে জানান। পরে পুলিশ গিয়ে অভিযুক্ত সাকিবকে আটক করে রাতেই থানায় নিয়ে আসেন।

এ বিষয়ে নাটোর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাছিম আহমেদ জানান, যৌন পীড়ন বা যৌন হয়রানীর অভিযোগে নির্যাতিত ছাত্রীর মা বাদী হয়ে নাটোর থানায় সাকিবের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। মঙ্গলবার বিকেলে সাকিবকে নাটোর সদর আমলী আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে মঙ্গলবার বিকেলে নাটোরের স্থানীয় অনলাইন সংবাদ শৈলীর সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা আটক সাজেদুর রহমান সাকিবকে নিজেদের শিক্ষা নবিশ স্টাফ রিপোর্টার স্বীকার করে অনৈতিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠায় তার নিয়োগ বাতিল করা হয়েছে বলে অনলাইনটিতে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছেন।

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button