ফরিদপুরে পিতাকে হত্যার দায়ে পুত্রের ফাঁসি

ফরিদপুর প্রতিনিধি

ফরিদপুরে পিতাকে হত্যার দায়ে পুত্র আনোয়ার হোসেন আরাফাতকে (২৮) ফাঁসির রায় দিয়েছে আদালত। একই সাথে মা রিজিয়া বেগম লিলিসহ (৫২) আরেক ভাই সাকিল সামিকে (২৫) যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেওয়া হয়।

বুধবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে ফরিদপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক শিহাবুল ইসলাম এ রায় দেন।

একই দিন বিকালে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি অ্যাডভোকেট সানোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। রায় ঘোষণার সময় আসামীরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ফরিদপুর সদর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নের বেতবাড়িয়া গ্রামের দিনমজুর মালেক শেখ ২০১৪ সালের ১১ অক্টোবর রাতে নিজ বাড়ীতে খুন হন। এ ঘটনায় নিহতের ভাই খালেক শেখ বাদী হয়ে কোতয়ালী থানায় ৩/৪ জন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করে।

মামলার তদন্তকালে পুলিশ জানতে পারে ঘটনার সাথে নিহতের স্ত্রী ও পুত্র জড়িত রয়েছে। এ সময় নিহতের বড় ছেলে আনোয়ার হোসেন আরাফাতকে গ্রেফতার করে। পরে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় আনোয়ার হোসেন আরাফাত। প্রথম স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও দ্বিতীয় বিয়ে করার কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে মা ও ভাইয়ের সহযোগীতায় পিতাকে কুপিয়ে হত্যা করে।

দীর্ঘ শুনানী শেষে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত নিহতের বড় ছেলে আনোয়ার হোসেন ওরফে আরাফাতকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ড কার্যকর করার আদেশ দেন। একই সাথে আদালত নিহতের প্রথম স্ত্রী রিজিয়া বেগম লিলি ও ছোট ছেলে সাকিল সামিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে। অনাদায়ে ২ বছরের কারাদন্ডের আদেশ দেন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button