মুন্সীগঞ্জে ব্যবসায়ীকে তুলে নিয়ে গুলি ও কুপিয়ে জখম

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি

মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে জিয়া সরকার (৪৫) নামের এক ইট বালু ব্যবসায়ীকে গুলি করে ও কুপিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ উঠেছে শিপন গ্রুপের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে টঙ্গিবাড়ি উপজেলার বেশনাল এলাকা থেকে তাকে উঠিয়ে নেয়। পরে তার পায়ে গুলি করে ও শরীরের বিভিন্নস্থানে কুপিয়ে সদর উপজেলার চরাঞ্চলের মোল্লাকান্দি ইউনিয়নে আমঘাটায় ফেলে রাখে। পরে পুলিশ খবর পেয়ে তাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । এ ঘটনার পর থেকে পুরো ইউনিয়ন জুড়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

আহত জিয়া সরকার সদর উপজেলার মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের নোয়াদ্ধা গ্রামের জেদ্দাল সরকারের ছেলে। সে ইউনিয়নটির সাবেক চেয়ারম্যান মহসিন হক কল্পনার সর্মথক।

আহত জিয়া সরকারের স্বজনরা জানান, টঙ্গিবাড়ি উপজেলার যশলং ইউনিয়নের সেজ্রাবাদ এলাকার তার ইট বালু ব্যবসার দোকান বন্ধ করে তার মেয়ে কে স্কুল থেকে আনতে যাওয়ার সময় একই উপজেলার বেশনাল কালভার্টে পৌছালে মোল্লাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রিপন পাটোয়ারীর ছোট ভাই শিপন পাটোয়ারী তার সহযোগী সন্ত্রাসী সোহাগ, মোসলেম, দিলদারসহ ১০-১২ জনের একটি সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী দল তাকে মাইক্রোবাসে উঠিয়ে রিপন চেয়ারম্যানের গ্রামের বাড়ি আমঘাটায় নিয়ে যায়। সেখানে জিয়ার পায়ে গুলি করে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে জখম করে ফেলে রাখে।

মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. সৈবাল বসাক জানান তার শরিরে বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রে আঘাত রয়েছে। এছাড়াও পায়ে দুটি গুলি করা হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

এব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) মোঃ তারেকুজ্জামান বলেন,ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার লক্ষে পুলিশের অভিযান চলমান রয়েছে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button