স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় পুলিশ পরিদর্শকের জেল জরিমানা

ফরিদপুর প্রতিনিধি

স্ত্রী ফারজানা খন্দকার তুলির দায়ের করা যৌতুকের দাবীতে নির্যাতন মামলার রায়ে চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনা থানার পুলিশ পরিদর্শক মো. শামসুদ্দোহাকে দুই বছর ছয় মাসের সশ্রম কারাদন্ড ও আরো ২০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্য্য করে রায় দিয়েছে আদালত।

মঙ্গলবার বিকালে ফরিদপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ প্রদীপ কুমার রায় এ দন্ড প্রদান করেন।

আদালতে সরকার পক্ষের কৌসুলী স্বপন পাল জানান, ২০১৫ সালের ০৭ আগষ্ট গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার গোপীনাথপুরের নুরুদ্দিন আহমেদের পুত্র মো. শামসুদ্দোহার সাথে বিবাহ হয় ফরিদপুর শহরের গোয়ালচামট এক নং সড়কের বাসিন্দা খন্দকার ফারুক আহমেদের কন্যা ফারজানা আক্তার তুলির। বিয়ের পর থেকে ৪০ রাখ টাকা যৌতুকের দাবী করে আসছিলেন স্বামী মো. শামসুদ্দোহা। সন্তানের সুখের কথা বিবেচনা করে ২০২১ সালের ০২ ডিসেম্বর ১৫ লাখ টাকা যৌতুক প্রদান করা হলেও থেমে থাকেনি নির্যাতন। ১৩ ডিসেম্বর আরো ১৫ লাখ টাকা দাবী করা হয়, যা দিতে অস্বীকৃতি জানালে মারপিট করে আহত করা হয় ফারজানা খন্দকার তুলিকে।

এ ঘটনায় তুলি বাদী হয়ে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে কোতয়ালী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

তিনি আরো জানান, রায় ঘোষনার সময় আসামী মো. শামসুদ্দোহা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বর্তমানে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button