জাতীয়

রাজধানীতে কয়েকটি বাসে আগুন

মোহনা অনলাইন

বিএনপি-জামায়তের হরতাল চলাকালে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ গেটে শিকড় পরিবহণ নামে একটি বাসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এছাড়া মোহাম্মদপুরে স্বাধীন পরিবহণের একটি বাসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এছাড়া গতকাল রাতে রাজধানীর ডেমরায় আছিম পরিবহণের একটি বাসে দেওয়া আগুনে পুড়ে চালকের সহকারীর মৃত্যু হয়েছে।

বিএনপি-জামায়তের হরতাল চলাকালে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ গেটে শিকড় পরিবহন নামে একটি বাসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। চলতি অবস্থায় বাসটিতে আগুন জ্বলতে দেখেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে।

গুগল নিউজে ফলো করুন Mohona TV গুগল নিউজে ফলো করুন Mohona TV

রোববার (২৯ অক্টোবর) সকাল পৌনে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে। তবে কে বা কারা বাসে আগুন দিয়েছে তা কেউ বলতে পারছে না। ঘটনাস্থলের কাছেই থাকা পুলিশ আগুন দেখে ছুটে এলেও কাউকে আটক করতেদ পারেননি বলে জানা গেছে।

ফায়ার সার্ভিস সকাল সোয়া নয়টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় বাসের ভেতরে কেউ ছিল না। ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের দায়িত্বরত কর্মকর্তা শিহাব সরকার বলেন, তাঁদের দুটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করেছে।

এছাড়া রাজধানীর ডেমরার দেইলা এলাকায় দুর্বৃত্তরা একটি বাসে আগুন লাগিয়েছে। এতে ওই বাসের চালকের সহকারীর মৃত্যু হয়েছে। চালকের আরেকজন সহকারী দগ্ধ হয়েছেন। তাঁরা দুজনেই বাসের ভেতর ঘুমিয়ে ছিলেন।

গতকাল শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ওই চালকের সহকারীর নাম নাইম। তাঁর বয়স ২২ বছর। বাসের মধ্য থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস। আগুনে দগ্ধ আরেকজনও বাসচালকের সহকারী। তাঁর নাম রবিউল। বয়স ২৫ বছর। তাঁকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে হরতাল শুরুর আগেই ভোরে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে স্বাধীন পরিবহণের একটি বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, ভোর সাড়ে ৫টার দিকে তিনজন ব্যক্তি আসে। তাদের মধ্য থেকে একজন পেট্রোল বা দাহ্য পদার্থ ঢেলে বাসটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। স্থানীয়রা একজনকে আটক করে। বর্তমানে ওই ব্যক্তি মোহাম্মদপুর থানায় রয়েছেন।

গতকাল বিকালে হরতাল ঘোষণার পর থেকে রাজধানীতে বেশ কয়েকটি গাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানেও গাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে বেশ কিছু আহতের ঘটনাও ঘটেছে।

author avatar
Mohona Online
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button