আন্তর্জাতিক

১৯৭১-এর যুদ্ধে বঙ্গোপসাগরে ডুবে যাওয়া পাকিস্তানি সাবমেরিন খুঁজে পেল ভারত

মোহনা অনলাইন

messenger sharing button১৯৭১ সালে বঙ্গোপসাগরে ডুবে যাওয়া পাকিস্তানি সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পাওয়ার দাবি করেছে ভারত। অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনমের কাছে এই পাকিস্তানি সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ মিলেছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, সম্প্রতি ভারতীয় নৌবাহিনীর নতুন অত্যাধুনিক জলযান এই সাবমেরিনকে খুঁজে বের করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন ১৯৭১ সালের ৪ ডিসেম্বর বঙ্গোপসাগরে তলিয়ে গিয়েছিল পিএনএস গাজি নামক ডুবোজাহাজটি। সেই ডুবোজাহাজের ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পেল ভারতীয় নৌসেনার ‘ডিপ সাবমার্জেন্স রেসকিউ ভেহিকে’’। এই জলযানটি গভীর সমুদ্রে উদ্ধারকাজে ব্যবহৃত হয়।

গুগল নিউজে ফলো করুন Mohona TV গুগল নিউজে ফলো করুন Mohona TV

বঙ্গোপসাগরে তলিয়ে যাওয়া পাকিস্তানি সাবমেরিনটি আগে মার্কিন নৌবহরের অংশ ছিল। মার্কিন সামরিক বাহিনীতে এই ডুবোজাহজটি ইউএসএস ডিবালো নামে ব্যবহার হতো। পরে সেটি পাকিস্তানের নৌবাহিনীকে দিয়েছিল আমেরিকা।

১৯৭১ সালের ১৪ নভেম্বর পাকিস্তান ছেড়ে ৪ হাজার ৮০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে বিশাখাপত্তনমের কাছে এসে পৌঁছেছিল পিএনএস গাজি। এই সাবমেরিন ধ্বংস করতে আইএনএস রাজপুত নামক রণতরীকে মোতায়েন করে ভারত।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, পিএনএস গাজির ধ্বংসাবশেষ বিশাখাপত্তনম থেকে মাত্র ২ থেকে আড়াই কিলোমিটার দূরে পাওয়া গেছে বলে দাবি করা হয়েছে। পানির তলায় মাত্র ১০০ মিটার গভীরে এই সাবমেরিনটিকে খুঁজে বের করে ভারতীয় নৌসেনার ডিপ সাবমার্জেন্স রেসকিউ ভেহিকেল।

ডুবে যাওয়ার সময়ে পাকিস্তানের এই সাবমেরিনে ছিলেন ৯৩ জন নাবিক। যাদের মধ্যে ১১ জন ছিলেন অফিসার। ভারতের পূর্ব উপকূলের কাছে সমুদ্রে মাইন বসানোর জন্যে এই সাবমেরিনকে পাঠানো হয়েছিল। এছাড়া ভারতের বিমানবাহী রণতরী আইএনএস বিক্রান্ত ধ্বংস করার দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল পিএনএস গাজিকে।

author avatar
Mohona Online
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button