তৃতীয় ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়াল বাংলাদেশ

সাজ্জাদুর রহমান

জিম্বাবুয়ে সফরটা হতাশায় কাটলো বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টির পর ওয়ানডেতেও হারের স্বাদ পেলো লাল-সবুজ প্রতিনিধিরা সিরিজর শেষ ও নিজেদের ৪শতম ওয়ানডে ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ১০৫ রানে হারিয়ে  হোয়াইটওয়াশ লজ্জা এড়ালো তামিম বাহিনী তারপরও ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলো জিম্বাবুয়ে

চলতি বছর দক্ষিণ আফ্রিকা,ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে  জিতলেও জিম্বাবুয়ের কাছে ধরাশায়ী হয়েছে বাংলাদেশ। ৯ বছর পর জিম্বাবুয়ের কাছে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ হারা টাইগারদের সান্ত্বনা একটাই- শেষ ওয়ানডেতে স্বাগতিকদের ১০৫ রানে হারিয়ে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়ানো সম্ভব হয়েছে।

হারারেতে শেষ ম্যাচে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৯ উইকেটে ২৫৬ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। একাদশে পরিবর্তন ছিল দুটি। তাসকিন ও শরিফুলের পরিবর্তে মাঠে নামেন মোস্তাফিজ ও এবাদত। ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ৮৫ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন আফিফ আর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭৬ রান করেন বিজয়।

জবাবে,মাঠে নেমেই খেই হারিয়ে ফেলে গোটা সিরিজে মারকুটে ভঙ্গিতে খেলা আফিকার দলটি। দলীয় মাত্র ১৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে দিগভ্রান্ত হয়ে পড়ে জিম্বাবুয়ে। ওয়ানডেতে প্রথমবার মাঠে নেমেই দুই উইকেট শিকার করেন এবাদত হোসেন।

টাইগারদের বোলিং তোপে ৮৩ রানে ৯ উইকেট হারানো স্বাগতিকদের শতরানের মধ্যেই গুটিয়ে যাওয়ার শংকা দেখা দেয়। তবে লো অর্ডারের দুই ব্যাটার এনগারাভা ও নিয়াউচির ৬৮ রানের জুটিতে দেড়শ রানের কোটা পার করতে সক্ষম হয় জিম্বাবুয়ে।

বল হাতে মোস্তাফিজ ৪টি এবং এবাদত ও তাইজুল নেন ২টি করে উইকেট। ম্যাচ সেরা আফিফ ও সিরিজ সেরা হয়েছেন সিকান্দার রাজা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button