গানের জগতের আরেকটি নক্ষতের পতন।

গানের জগতের আরেকটি নক্ষতের পতন। অনেকটা গান গাইতে গাইতেই না ফেরার দেশে  পারি জমালেন এপার-ওপার বাংলাসহ তামাম ভারতের জনপ্রিয় সিঙ্গার কৃঞ্কুমার কুন্নাথ। যিনি কে কে নামেই সবচেয়ে বেশি পরিচিত। মঙ্গলবার কলকাতায় একটি সংগীতানুষ্ঠানে যোগ দিয়ে যথারীতি গান গাচ্ছিলেন, যে গানের  কথা গুলো ছিলো আমরা কাল থাকি আর না থাকি এ মুহুর্তগুলো মনে পরবে সব সময়। কিভাবে যেন গানের কথার সাথে মিলে গেল সব ছন্দ,কয়েক মিনিটের মধ্যেই সব শেষ।

জানাযায, কলকাতার গুরুদাস কলেজের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসেছিলেন বলিউডের এই বিখ্যাত গায়ক, তখন নজরুল মঞ্চে চলছিল অনুষ্ঠান। সেখানেই হঠাৎ অসস্থি বোধ করলে হোটেলে ফিরে মারাত্মকভাবে অসুস্থবোধ করেন তিনি। তারপর দ্রুত তাঁকে কলকাতার সিএমআরআই হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই এমন মৃত্যুতে চোখের জলে ভাসছে ভক্ত হৃদয়।  কী কারণে মৃত্যু হয়েছিল, তা এখনও জানা যায়নি। তবে মনে করা হচ্ছে হার্ট অ্যাটাকের কারণেই মৃত্যু হয়েছে কে কে র।

কলকাতায় গুরুদাস কলেজের সোশ্যালে যোগ দিতে এসে ঘটে এমন হৃদয়বিদারক ঘটনা যেখানে তাঁকে ঘিরে  ছিল সবার মনে বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস। তেমন কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই লক্ষ কোটি ভক্তকে কাঁদিয়ে  বিদায় নেন শত শত বিখ্যাত গানের এ যাদুকর।

১৯৬৮ সালের ২৩ আগস্ট দিল্লীতে জন্ম গ্রহন করেন কে কে। ১৯৯৭ সালে ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ ছবিতে প্রথম প্লেব্যাক করেন তিনি। তার পর থেকে উপহার দিয়েছিলেন জনপ্রিয় কিছু গান যা সব সময়ই সব বয়সি মানুষের মনে ধরার মতো তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো তুহি মেরা সাব হে,কিয়া মুঝে পিয়ার হ্যা, দিল ইবাদত , আল বিদাসহ বহু গান। প্লেব্যাক করেছেন হিন্দি, বাংলা, তামিল, তেলেগু, কন্নড়, মালায়লম এবং মারাঠি ভাষায়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button